পিঠাপুলি

পিঠাপুলি

পিঠাপুলি

ক্ষীরসা মালাই পাটিসাপটা

যা লাগবে : পোলাওয়ের চালের গুঁড়া এক কাপ, ময়দা আধা কাপ, গুড়াঁদুধ দুই টেবিল চামচ, চিনি আধা কাপ, সুজি চার ভাগের এক কাপ, ঘি এক টেবিল চামচ, লবণ এক চিমটি, পানি দেড় কাপ, ক্ষীরসা দেড় কাপ। সব উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে পিঠা তৈরি করে নিন। ১৮-২০টা পিঠা হবে।

মালাই তৈরি-যেভাবে করবেন : দুধ দুই লিটার, ক্রিম এক টিন (২০০ গ্রাম), চিনি আধা কাপ, জাফরান-১ চিমটি।

যেভাবে করবেন : সব একসঙ্গে জ্বাল করে নিন। ঘন হলে নামিয়ে নিন। পরিবেশন পাত্রে পিঠা সাজিয়ে মালাই ঢেলে দিন। ওপরে বাদাম কুচি ছড়িয়ে পরিবেশন করুন।

দুধপুলি

যা লাগবে : (ক) কাই তৈরির জন্য-চালের গুঁড়া দুই কাপ, পানি-পরিমাণমতো লবণ এক চিমটি।

যেভাবে করবেন : হাঁড়িতে পানি দিয়ে ফুটতে শুরু করলে চালের গুঁড়া দিয়ে সিদ্ধ কাই করে মথে নিন।

(খ) পুর তৈরির জন্য-দুধ এক লিটার, পোলাওয়ের চালের গুঁড়া দুই টেবিল চামচ, নারিকেল বাটা আধা কাপ, কিশমিশ দুই টেবিল চামচ, খেজুর গুড় আধা কাপ।

যেভাবে করবেন : চালের গুঁড়া শুকনা খোলায় টেলে নিন। দুধ জ্বাল দিয়ে ঘন করে চালের গুঁড়া দিন। চাল সিদ্ধ হলে অন্যান্য উপকরণ দিয়ে জ্বাল করে নামিয়ে নিন।

(গ) দুধ দুই লিটার, এলাচ দুই-তিনটি, দারুচিনি দুই টুকরা, চিনি ১/৪ কাপ।

যেভাবে করবেন : পূর্বে তৈরি করা কাই থেকে অল্প পরিমাণে নিয়ে হাতের তালুতে রেখে খোলের মতো বানিয়ে নিন। খোলের ভেতর ক্ষীরসার পুর ভরে চেপে মুখ বন্ধ করে নিন। দুই লিটার দুধ চুলায় এলাচ, দারুচিনি দিয়ে জ্বাল করুন। ফুটে উঠলে চিনি দিন। ফুটন্ত দুধে পিঠা দিন। আঁচ কমিয়ে জ্বাল করুন। দুধ ঘন হলে নামিয়ে নিন।

বি. দ্র. এ পিঠা অন্যান্য পুলি পিঠা থেকে একটু ছোট করে বানাতে হবে।

দুধ-খেজুর পিঠা

যা লাগেবে : দুধ পাঁচ কাপ, ময়দা চার কাপ, লবণ এক চা চামচ, ঘি চার টেবিল চামচ, চিনি দুই টেবিল চামচ, ডিম চারটা, বেকিংপাউডার দুই চা চামচ, গুঁড়াদুধ দুই টেবিল চামচ।

গুড়-চিনির সিরা

পানি ছয় কাপ, চিনি তিন কাপ, এলাচ গুঁড়া ১/৪ চা চামচ।

দুধের সিরা

দুধ দুই লিটার গুড়/চিনি দুই কাপ, এলাচ গুঁড়া এক চিমটি।

যেভাবে করবেন : চিনির সিরার সব উপকরণ দিয়ে সিরা তৈরি করে নিতে হবে। ময়দা, গুঁড়াদুধ, একসঙ্গে মিশিয়ে দুধ দিয়ে ময়ান করে নিন। গরম ডো চুলা থেকে নামিয়ে একটা করে ডিম দিয়ে ময়ান করে নিতে হবে। খামির থেকে সমান পরিমাণ নিয়ে লেচি কেটে হাতপাখার ওপর তেল ব্রাশ করে গড়িয়ে নিন।

মিডিয়াম আঁচে গরম তেলে ভেজে নিন। তৈরি করে রাখা চিনির সিরায় ভিজিয়ে রাখুন ২০ মিনিট।

দুধের সিরায় দুই ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখলেই তৈরি হয়ে যাবে দুধ খেজুর পিঠা।

ভাপা পুলি

যা লাগবে : আতপ চালের গুঁড়া দুই কাপ, ময়দা ১/৪ কাপ, লবণ ১/৪ চা চামচ, পানি এক কাপ, তেল দুই চা চামচ। নারিকেল কোরা দুই কাপ, গুড় বা চিনি এক কাপ, তেজপাতা একটি, এলাচ তিন-চারটি, দারুচিনি দুই ইঞ্চি এক টুকরা।

যেভাবে করবেন : পুরের সব উপকরণ একসঙ্গে জ্বাল দিয়ে চটচটে হলে নামিয়ে নিন। এলাচ দারুচিনি তেজপাতা তুলে ফেলে দিন। হাঁড়িতে পানি ও লবণ দিয়ে ফুটিয়ে নিন। ফুটন্ত পানিতে দুই চা চামচ তেল দিন। এবার চালের গুঁড়া ময়দা দিয়ে ঢেকে আঁচ কমিয়ে দিন। চালের গুঁড়া সিদ্ধ হলে নেড়ে নামিয়ে ভালো করে মথে নিন। ১২-১৪ ভাগ করুন। প্রতি ভাগ কাই হাতের তালুতে নিয়ে বাটির মতো বানিয়ে ভেতরে এক চা চামচ পুর ভরে মুখ বন্ধ করে দিন। গোল, অর্ধচন্দ্রাকার কিংবা পুঁটলির মতো তৈরি করুন। পিঠা ২৫-৩০ মিনিট ভাপে সিদ্ধ করে নিন পইনে দিয়ে। পিঠা সিদ্ধ হলে ওপর থেকে গরম পানি ঢেলে দিন। তাহলে পিঠা একটার সঙ্গে একটা লাগবে না।